বিজ্ঞপ্তি

এই লেখাটি গল্পকবিতা কর্তৃপক্ষের কোন সম্পাদনা ছাড়াই অথবা উপেক্ষণীয় সম্পাদনা সহকারে প্রকাশিত এবং কর্তৃপক্ষ এই লেখার বিষয়বস্তু, মন্তব্য অথবা পরিণতির ব্যাপারে দায়ী নয়।

ভোট

কবি এই নিবন্ধটি উপর ভোটিং বন্ধ রেখেছে

লেখকের তথ্য

Photo
জন্মদিন: ১৬ অক্টোবর ১৯৭০
গল্প/কবিতা: ৪২টি

লেখকের সব গল্পকবিতা

হিয়ার মাঝে লুকিয়ে ছিলে…

রাত মে ২০১৪

দালালী

বাংলার রূপ এপ্রিল ২০১৪

স্মরণাবর্তের বেলা অবেলা

মুক্তিযোদ্ধা ডিসেম্বর ২০১২
লোড হচ্ছে...

২১শে ফেব্রুয়ারী (ফেব্রুয়ারী ২০১২)

একুশাশ্রয়ী

আহমাদ মুকুল
comment ৪৪  favorite ৫  import_contacts ৪৯৩
এমন কোন দিন ছিল না জিভ নড়েনি
এমন কোন ক্ষণ ছিল কি, মন রাঙেনি?

এমন কোন রাত নেই, স্বপ্ন হানা দেয়নি
লিখতে বসলে কলম চলেনি,
এমনটিও দেখা হয়নি।

মায়ের মুখ নাড়া দেখে কান্না থামিয়ে
ফ্যাল ফ্যাল করে তাকায়নি-
এমনটি শিশু কেউ দেখেনি।
প্রিয়ার কথা অস্পষ্ট, তাও কেউ কখনো বলেনি।

ভাষা, মনন, অন্তর যতক্ষণ চালু
বচন লেখনী, কিংবা চিন্তার কমতি, কখনো ঘটেনি

……………………
শিকড় উপড়ানো বৃক্ষ ফিরে তাকায়
ছায়া প্রত্যাশী পথিক আর শাখাশ্রয়ী পাখ-পাখালিতে।
মুকুলিত মঞ্জরীর ব্যর্থতার হা-হুতাশ!

কাগজের অস্থির প্রতীক্ষা- স্তনবৃন্ত ফেঁটে দুগ্ধের মত
গড়িয়ে পড়ে উন্মুখ কলমের কালি।
বিন্দু, দাগগুলো মূর্ত হতে চায়!
তবু কবি সাড়াহীন।

শুধু তোর জন্য আজ মৌনতা ভঙ্গ….
লিখতে বসেছি- একুশ, তোকে স্মরি।
  • সাজিদ খান
    সাজিদ খান (কাগজের অস্থির প্রতীক্ষা- স্তনবৃন্ত ফেঁটে দুগ্ধের মত/গড়িয়ে পড়ে উন্মুখ কলমের কালি।বিন্দু, দাগগুলো মূর্ত হতে চায়!তবু কবি সাড়াহীন ) অসাধারণ লিখেছেন । আপনি আসলেই খুব ভাল লেখেন । ধন্যবাদ ।
    প্রত্যুত্তর . ১১ ফেব্রুয়ারী, ২০১২
  • জালাল উদ্দিন মুহম্মদ
    জালাল উদ্দিন মুহম্মদ শিকড় উপড়ানো বৃক্ষ ফিরে তাকায়/
    ছায়া প্রত্যাশী পথিক আর শাখাশ্রয়ী পাখ-পাখালিতে।//------ অন্যরকম অনুভূতি পেলাম। অভিনন্দন ও শুভকামনা।
    প্রত্যুত্তর . ১১ ফেব্রুয়ারী, ২০১২
  • মাহমুদুল হাসান ফেরদৌস
    মাহমুদুল হাসান ফেরদৌস অনেক ভাল লাগল লেখাটি। তবে ভোটিং বন্ধ।
    প্রত্যুত্তর . ১১ ফেব্রুয়ারী, ২০১২
  • মোঃ নুর হোসেন
    মোঃ নুর হোসেন পড়তে দারুন লাগলো..... শুভেচ্ছা কবি ও কবিতাকে...
    প্রত্যুত্তর . ১২ ফেব্রুয়ারী, ২০১২
  • মনির  মুকুল
    মনির মুকুল ধরা-বাঁধা নিয়মের বাইরেও যে অসাধারণ ভাবনা জাগানিয়া কিছু করা যায় তা আপনার লেখাগুলো পড়লেই বোঝা যায়। অপনার অন্তরচক্ষু আমাকে প্রতিবারই মুগ্ধ করে।
    প্রত্যুত্তর . ১৫ ফেব্রুয়ারী, ২০১২
    • মনির মুকুল ভোট অপশন গেল কই? (উপরের মন্তব্যগুলো পড়লে হয়তো উত্তর পেয়ে যাব কিন্তু আপাতত সময় কম)
      প্রত্যুত্তর . ১৫ ফেব্রুয়ারী, ২০১২
  • নীলকণ্ঠ অরণি
    নীলকণ্ঠ অরণি অসাধারণ... এক দমে পড়ে ফেলার পর এই উক্তি ই আসে।
    প্রত্যুত্তর . ১৬ ফেব্রুয়ারী, ২০১২
  • সুমননাহার  (সুমি )
    সুমননাহার (সুমি ) কবিতা টি কঠিন তবুও ভিশন ভালো লাগলো মুকুল ভাইয়া
    প্রত্যুত্তর . ১৯ ফেব্রুয়ারী, ২০১২
  • ওয়াছিম
    ওয়াছিম এখানে কি দুটো কবিতা....... অসাধারন, প্রথম অংশের প্রতিটি চরন এক একটি কবিতা হয়ে সামনে এসে দাড়িয়েছে...............
    প্রত্যুত্তর . ২২ ফেব্রুয়ারী, ২০১২
  • সূর্য
    সূর্য অনেক সময় মন প্রকাশে ভাষা খুব দরিদ্র হয়ে পড়ে। অগোছালো স্বপ্নরা অস্ফুট শব্দই শুধু করে যায়, তবুও বলা হয় না, প্রকাশ হয় না মনের অব্যক্ত ভাবনাগুলো।
    প্রত্যুত্তর . ২৩ ফেব্রুয়ারী, ২০১২
  • মোঃ শামছুল আরেফিন
    মোঃ শামছুল আরেফিন কবিতা তো ভাইয়া অনেক সুন্দর হয়েছে। ভটিং অফ করে রেখেছেন কেন?
    প্রত্যুত্তর . ২৭ ফেব্রুয়ারী, ২০১২
ad section
Shore O Shore A Hrosho I Dirgho I Hrosho U Dirgho U Ri E OI O OU Ka Kha Ga Gha Uma Cha Chha Ja Jha Yon To TTho Do Dho MurdhonNo TTo Tho DDo DDho No Po Fo Bo Vo Mo Ontoshto Zo Ro Lo Talobyo Sho Murdhonyo So Dontyo So Ho Zukto Kho Doye Bindu Ro Dhoye Bindu Ro Ontosthyo Yo Khondo Tto Uniswor Bisworgo Chondro Bindu A Kar E Kar O Kar Hrosho I Kar Dirgho I Kar Hrosho U Kar Dirgho U Kar Ou Kar Oi Kar Joiner Ro Fola Zo Fola Ref Ri Kar Hoshonto Doi Bo Dari SpaceBar